আমার রচনার চরিত্রটি বিষয়ের সাথে অনেক মিল আছে। যা চরিত্রর কাজে কর্মে প্রকাশ পায়। এবং ব্যাক্তিগত বিষয়েও দারুণ ভাবে মিলিত আছে বিষয়ের সাথে। উল্লেখিত বিষর যথার্থ ভুমিকা পালন করবে বলে আশা রাখছি।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৪ এপ্রিল ১৯৯৫
গল্প/কবিতা: ৮টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - কৃপণতা (নভেম্বর ২০১৮)

কৃপণতা
কৃপণতা

সংখ্যা

মোট ভোট

বইখাতা

comment ৯  favorite ০  import_contacts ১০১
কৃপণ শব্দে পরিচিত
বাড়ি বাজার মাঠে।
পিতা ছেলে বৌমা
বেজায় অখুশি তাতে।

চলতে ফিরতে কানাকানি
শোনে মাঠে ঘাটে।
বেশি খরচ হলেই একটু
সঞ্জয়ের বুকটা ফাটে।

সঞ্জয়ের গুপ্ত সম্পদ
বহুত আছে ঘটে।
যত ব্যয় ততই সংকট
মাথা ব্যাথা তাতে।

লুকিয়ে রাখা টাকাপয়সা
জমা আছে বটে।
যত আয় ততটা সঞ্চয়
গুঁজে রাখে গ্যাঁটে।

ছেলের বিয়ে বেজায় খুশি
খরচ করবে না মোটে।
নতুন সদস্য যোগ এবার
তাতেই অঘটন ঘটে।

নিজ তাগিদে করতে ব্যয়
বুক যেন তার ফাটে।
দোকানদার বেশি বললেই
যায় যে সে চোটে।

ফ্রী পেলে যাবে দৌড়ে
লোকে বলবে কি তাতে।
অপ্রয়োজনীয় হলেও সেটা
আনবে থলেতে।

বিনা দাওয়াতে ভোজ বাড়িতে
দাড়িয়ে থাকবে গেটে।
পরনিন্দার বালাই ছেড়ে
বসবে চেয়ার সেঁটে।

আপ্যায়নে দারুণ খুশি
ক্ষতির হিসেব নেই।
মিষ্টির দোকান পার হলেও
তাকায় না সে মোটেই ।

ডাল ভাত খেয়ে পেটটা তার
গিয়েছে অনেক ফুলে।
আর কিছু লাগে না তার
পেঁয়াজ কাঁচামরিচ পেলে।

নাদুসনুদুস দেহখানি তার
বারবার চেয়ে দেখে।
তার কথা সবাই জানে
বাজারে গুড় চেখে দেখে।

স্বামী স্ত্রী দুজনেই কৃপণ
কৃপণ বড় ছেলে।
এমন সুখের সংসার কি আর
এই জগতে মেলে।

টাকা জমিয়ে প্রতি বছর
জমি কেনে সঞ্জয়।
এই কথা কি লুকিয়ে থাকে
প্রতিবেশীর হিংসে হয়।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  •  মাইনুল ইসলাম  আলিফ
    মাইনুল ইসলাম আলিফ বেশি বেশি কবিতা পড়তে হবে।ভাল চেষ্টা ছিল।শুভ কামনা রইল।আসবেন আমার কবিতার পাতায়।
    প্রত্যুত্তর . ১ নভেম্বর, ২০১৮
  • বইখাতা
    বইখাতা ধন্যবাদ সহৃদ।
    প্রত্যুত্তর . ১ নভেম্বর, ২০১৮
  • শামীম আহমেদ
    শামীম আহমেদ অসাধারন লিখেছেন! ভোট রইলো
    প্রত্যুত্তর . ৬ নভেম্বর, ২০১৮
  • মনতোষ চন্দ্র দাশ
    মনতোষ চন্দ্র দাশ সম্পদ নিয়ে কৃপণতা ভালই লিখেছেন।ভোট দিলাম।
    প্রত্যুত্তর . ৬ নভেম্বর, ২০১৮
  • বইখাতা
    বইখাতা ধন্যবাদ
    প্রত্যুত্তর . ৭ নভেম্বর, ২০১৮
  • বইখাতা
    বইখাতা ধন্যবাদ
    প্রত্যুত্তর . ৭ নভেম্বর, ২০১৮
  • নাজমুল হুসাইন
    নাজমুল হুসাইন স্বামী স্ত্রী দুজনেই কৃপণ
    কৃপণ বড় ছেলে।
    এমন সুখের সংসার কি আর
    এই জগতে মেলে। ভালো লিখেছেন।ভোট রইলো।আমার পাতায় আসবেন।
    প্রত্যুত্তর . ৯ নভেম্বর, ২০১৮
  • মুহাম্মাদ লুকমান রাকীব
    মুহাম্মাদ লুকমান রাকীব প্রিয় কবি/লেখক.
    অাপনাদের জন্য নতুন ওয়েব সাইট www.kobitagolpo.com
    তৈরি করা হয়েছে নতুন অাঙিকে।
    এখানে বর্তমান প্রতিযোগীতার জন্য নির্ধারিত “বাবা-মা” শিরোনামে লেখা জমা দেয়ার জন্য অামন্ত্রণ করা হচ্ছে। অাগ্রহীগণ ২৫ নভেম্বরের মধ্যে www.kobitagolpo.com এ লিখা জমা...  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . ১৮ নভেম্বর, ২০১৮
  • বইখাতা
    বইখাতা শব্দ সংখ্যা বা লাইন সংখ্যা নিয়ে একটু কথা ছিলো, যদি পারেন যত দুর বাড়ানো সম্ভব বাড়াবেন।
    প্রত্যুত্তর . ১৯ নভেম্বর, ২০১৮

advertisement