কবিতায় জীবনের হতাশা আর গ্লানির দিকগুলোকে অাঁধারের সাথে তুলনা করা হয়েছে।শৈশবে আমরা অবুঝ থাকি আমাদের দিনগুলোতে জটিলতা থাকে না,আমরা যত বড় হই আমাদের হতাশা বাড়ে ,জীবন আঁধারের মতো অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে যায়
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১০ এপ্রিল ১৯৯৯
গল্প/কবিতা: ২টি

সমন্বিত স্কোর

৩.৮৫

বিচারক স্কোরঃ ২.২৯ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৫৬ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - আঁধার (সেপ্টেম্বর ২০১৮)

আঁধারের দিকে যায়
আঁধার

সংখ্যা

মোট ভোট ১৩ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.৮৫

ইউনা আফরোজ

comment ২২  favorite ২  import_contacts ১৮৮
রাজকন্যার সুখে চৌকাটে রাক্ষসের দখল
অতঃপর সাহসী রাজপুত্রের প্রবেশে সুখের অনুপ্রবেশ ।
তারপর তাদের রাজা রানী রুপান্তরে রাজ্যের অনাবিল সুখ !
রুপকথার মতো আর কি হয় এই নীলছে অন্ধকারাচ্ছ জীবন?
শৈশবের ছোট নদী কিংবা প্রজাপতির মতো উড়ন্ত ক্ষণ সেই তো ক্ষণস্থায়ী !
যৌবনে সে ছোট নদীটা বড় হয়ে যায় ,খসে যায় প্রজাপতির পাখা ।
চাইলেই পা ডুবিয়ে নদীর জলের শব্দে গান হয় না,
যেন তলিয়ে যাই গভীর জলে।
চাইলেই প্রজাপতির মতো উড়া যায় না,পিছনে কারা যেন লাল নীল সুতোয় বেঁধে রেখে হাজারো দায়বদ্ধতা !
এখানে রুপকথার রাজপুত্ররা
সোনার কাঠি রুপোর কাঠিতে হতাশ ঘুমের ঘোর কাটিয়ে সুখ রাজ্যে নিয়ে যায় না।
এখানে রাক্ষসের ছদ্মরুপ রোনাজারি আর সঙ্গ ছাড়ে না।
অন্ধকারে কোনের ভাঙা দেয়ালের মতো জীবনে ক্ষয়ে যায় ক্ষনিকেই।
জীবন ক্ষয়ে ক্ষয়ে শুধু আঁধারের দিকে যায় ।
শুধু আঁধারের দিকে যায় ।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement