প্রিয়জন হারানোর কষ্ট যে কতটা তীব্র, যে প্রিয়জন হারায় সেই কেবল জানে। এক বাবার মৃত্যুতে তার সন্তানের আহাজারি আর কষ্টের কথা তুলে ধরা হয়েছে কবিতাটিতে।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১১ জুন ১৯৯৪
গল্প/কবিতা: ৭টি

সমন্বিত স্কোর

৩.৩

বিচারক স্কোরঃ ২.১ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.২ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - কষ্ট (জানুয়ারী ২০১৯)

কষ্ট
কষ্ট

সংখ্যা

মোট ভোট প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.৩

আইরিন

comment ২  favorite ০  import_contacts ১১২
আমি যেদিন জন্মেছিলাম,
সেদিনের অনুভূতি আমার মনে নেই।
কিন্তু বেচে থেকেও, ২য় বার জন্মানোর অনুভূতি,
ভুলবোনা কোনদিনই।

হাসপাতালের কেবিন ঘুরে এসে এসে,
বাবার মুখখানা যখন চোখে পড়তো।
বুকের মধ্যে এক ভয়ানক ব্যাথা,
আমাকে দুমড়ে মুচড়ে দিতো।

প্রানের বিনিময়ে যদি ফিরে পাওয়া যেতো প্রান।
আমার প্রানের বিনিময়ে ওইদিন,
বাবাকে ফিরে চাইতাম।
কিন্তু না! বাবা মৃত্যুর সাথে যুদ্ধ করতে করতে,
একসময় চলেই গেলেন।

এই দৃশ্যটা যে কতটা মর্মান্তিক!
তা অনির্বচনীয়।
এ ব্যাথা যে কতটা তীব্র!
তা কেবলই অসহনীয়।

সেদিন, কে বন্ধু, কে শত্রু, কে আমি?
সবাইকে চিনেছি নতুনভাবে।
আমার আমিত্বকে আবিষ্কার করেছি,
জন্ম নিয়েছি এক ভয়ংকররুপে।

আমার বুক জুড়ে আজ শুন্যতা,
ভালোবাসার আকাল।
বাবার ভালোবাসার আকাল।

আমার খুব একলা লাগে,
যখন কল লিষ্টে বাবার নাম দেখিনা।
যখন আব্বু বলে কেও ডাকেনা।
যখন কোথাও বাবার সাড়া পাইনা।
তখনই কষ্ট হয়।
ভীষন কষ্ট হয়।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • নাজমুল হুসাইন
    নাজমুল হুসাইন বাবাকে নিয়ে লিখেছেন,শুভকামনা রইলো আর আমার পাতায় আমন্ত্রণ জানালাম।
    প্রত্যুত্তর . thumb_up . ২২ জানুয়ারী
  • মোঃ নুরেআলম সিদ্দিকী
    মোঃ নুরেআলম সিদ্দিকী আমার খুব একলা লাগে,
    যখন কল লিষ্টে বাবার নাম দেখিনা।
    যখন আব্বু বলে কেও ডাকেনা।
    যখন কোথাও বাবার সাড়া পাইনা।
    তখনই কষ্ট হয়।
    ভীষন কষ্ট হয়। খুব ভালো লেগেছে। লেখার ভিতরে আলাদা একটা ভাব আছে।। শুভ কামনা।।
    প্রত্যুত্তর . ৩০ জানুয়ারী

advertisement