অলিক বা ভারচুয়াল মানে-অস্তিত্ত্ব আছে অথচ গোচরে নেই। কবি তো এমনিতেই কল্প-জগতে বিচরণ করেন। বাস্তব জিনিষকেও কল্পনার চোখে দেখে থাকেন। আর এখন তো কম্পিউটারের যুগ। সেখানে সব কিছু ভার্চুয়াল। এর বেশী বিশ্লেষন করে দিলে কবিতার আনন্দ নষ্ট হয়ে যাবে বলেই মনে করছি। গদ্যকে আবরণ দিয়ে কবিতার রচনা। সেজন্য আমি চাই না আবরণ মুক্ত করতে। পায়হকগন বিবেচনা করবেন নির্ধারিত বিষয়ের সাথে আমার কবিতার সামঞ্জস্য আছে কি না। আমার ধারনায় কবিতার নির্ধারিত বিষয়ের সাথে আমার কবিতা "অলিক জগৎ" এর সামঞ্জস্য আছে বলে মনে করছি। ধন্যবাদ।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১১ ডিসেম্বর ২০১৮
গল্প/কবিতা: ১১টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - অলিক (অক্টোবর ২০১৮)

অলিক জগৎ
অলিক

সংখ্যা

মোহন মিত্র

comment ৫  favorite ০  import_contacts ৪৬
জন অরণ্যে সবাই একলা, মরীচিকার হাতছানি
পছন্দ-অ্যাবাকাসে। নিঃসঙ্গ সঙ্গ চায় তবু নিস্তব্দ রক-গুলজার,
বাসে ট্রে্নে কথা নেই, জীবন্ত পৃথিবীর এক স্তব্ধ মিছিল।
বিচ্ছিন্ন বন্ধু পরিবার, মানুষ একা, ঘরে বাইরে সাথীহারা।
হাতের মুঠোয় জগৎ এখন, উঁকি মারে ছায়াসাথী,
অলিক আকাশে তারা ফোটে লাল নীল হলুদ সবুজ।
জোনাকের সঙ্কেত অনাবিল সুখ,
অচেনা মুখ চকিতে ভাসে, দেখি বইমুখ। অনেক ব্যস্ততা,
আঙ্গুল ছুঁয়ে ঝুপ ঝুপ আপডেটস, বহু অনুরোধ
বন্ধু হতে চাই, তারা নক্ষত্র কোন ভেদ নাই, চাইলে
সূর্য তাও ধরা দেয়। মোহময় অলিক জগৎ, ছবি আঁকে
বোতাম টিপে, আঙ্গুলের ছোঁয়ায় লেখে জীবনের স্বরলিপি,
কান্না হাসি, দুঃখ সুখ জীবনের অনুভূতি, হাতের মুঠোয়
বিশ্ব-গাঁ, এক আকাশ ভালোবাসা, এক নদী হাসি
ব্যথার পাহাড়, নিরালায় আমি একাকী।
পছন্দ-অ্যাবাকাসে ভালোলাগা খুঁজি।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement