সবাই নেতিয়ে গেলেও বাবা বসে পড়েন না। খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে হলেও চলতে থাকেন। সংসারে চাকা চালাতে থাকেন। স্বপ্ন বুনতে বুনতে এক সময় এক সময় স্বপ্নের মত হারিয়ে যান।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
গল্প/কবিতা: ৪১টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - বাবা (জুন ২০১৯)

বাবার মানচিত্র
বাবা

সংখ্যা

জামাল উদ্দিন আহমদ

comment ৫  favorite ০  import_contacts ৯৩
বাবাদের হাত হয় উষর মরুর কংকর, অমসৃণ কঠিন
চৌচির ফাটল বেয়ে আজন্ম বহমান ঘাম আর রক্তের নহর।
বাবাদের রক্তে ফোটে স্বপ্নের গোলাপ, তারপর
ক্রমশ লাল থেকে ফ্যাকাশে হয়, ঝরে যায় অবশেষে।

বাবারা সলতে হয়ে জ্বলে জীবনের জটিল মোহনায়
তারপর দপ করে নিভে যায় নিরাশার দমকা হাওয়ায়।
কখনও গড়ায় না নোনাজল শিলীভূত গালে
বাবাদের অশ্রুকণা উবে যায় মেঘেদের সাথে।

বাবাদের দিনগুলি চেটে খায় আঁধারের বাদুড়
চোখের গোলক ঘিরে বসে থাকে অমানিশার চাঁদ।
বাবারা স্বপ্ন সাজায় আলোকবর্ষী ছায়াপথ জুড়ে -
ছানারা মাড়াবে সেপথ বিকিরিত মশাল হাতে।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement