প্রিয় মা চলে যাওয়ার অব্যক্ত বেদনা। খুব কাছে থেকে মৃত্যুকে দেখা। সারাক্ষণ তার আদর্শে জড়িয়ে থাকা, একটা শূন্যতার অনুভব।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১১ সেপ্টেম্বর ১৯৬৯
গল্প/কবিতা: ৭টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - মা (মে ২০১৯)

যেদিন তুমি চলে গেলে
মা

সংখ্যা

hosne ara parvin

comment ৫  favorite ০  import_contacts ১১৯
যেদিন তুমি চলে গেলে- আকাশটা কেমন ছিলো?
খুব মেঘাচ্ছন্ন! মনে নেই, কিচ্ছু মনে নেই,
চলে গেলে তুমি-একটিবারও চেয়ে দেখলে না এসেছি আমি,
বসে আছি তোমার পাশে, কতবার তোমায় ডেকেছি,
তুমি দিলে না সাড়া, নাকের একদিকে অক্সিজেন নল,
অন্য দিক দিয়ে খাবার, ক্যাথেটার, ডায়াপার,
হাতে স্যালাইন, কতকিছু জড়িয়ে আছে তোমার শরীর
তুমি চলে গেলে! চোখটা একটু মেলে, বড় বড় শ্বাস নিলে!
তারপর শান্তির ঘুম! ঘুমিয়ে গেলে।
সারারাত একা বসেছিলেম তোমার নিথর দেহটার পাশে,
চারিদিক নীরব নিস্তব্ধ, মাঝে মাঝে কুকুরের ঘেউ ঘেউ রব,
নিস্তব্ধতা ভেঙ্গে খান খান, তারপর আবার শুনশান!
তাহলিল খতম করছিলাম তোমার পাশে বসে,
আর নিজেকে প্রশ্ন করেছি-আমি কি ভয় পাচ্ছি!
মোটেও নয়, যে দেহটার ভেতর আমি বেড়ে উঠেছি,
যার রক্ত পুষ্টিতে গঠিত আমার শরীর- তাকে ভয়! কক্ষনো নয়,
একা একা জড়িয়ে ধরে খুব কাঁদতে ইচ্ছে হচ্ছিলো আমার
পারিনি! আত্মা কষ্ট পাবে ভেবে তোমার,
যা কখনো বলিনি, সেটাই বলতে চাইছিলো মন
“মা…” খুব খুব অনুভব করি তোমায়, সর্বক্ষণ।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement