চারিপাশে চেয়ে দেখি কত জ্ঞানী-গুণী,
আঁখি বুজে তাহাদের সব কথা শুনি,
প্রার্থনা করি তারা, যত দেয় চাপ,
সবিতে, যেন আমি খেয়ে যাই খাপ ।
পথ আমি চলি তারা কহে যেভাবে,
মাঝে মাঝে মেলি আঁখি নিজ স্বভাবে,
শাসন করিয়া আঁখি বন্ধ করায়,
আলোতে বাঁধিয়া আঁখি, অন্ধ সাজায় ।
শিখায় না মোরে তারা ন্যায় অন্যায়,
প্রতিবাদ করা সে তো আরও দূরে রয়,
এভাবেই বড় হলে একদিন আমি,
বাঁচাতে না পারিব মম এই ভূমি,
দুর্যোগে পরিবে যখন এ দেশ,
হাঁ করে চাহি চাহি হব নিঃশেষ ।
বৃথা জীবন তার, বৃথা সে খেচর,
উড়িবার যে কখন না পায় অবসর,
দয়া করে মোরে কিছু আলো দেও,
এই অন্ধত্ব তবে করিব উধাও ।