ছোট বেলায় মা কে হারাবার পর বাবাই হলেন একমাত্র অবলম্বন । একদিন কঠিন রোগে আক্রান্ত হয়ে বাবা ও এই পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চলে গেলেন । এই বিষয়ে সন্তানের অনুভূতির কথা লিখবার চেষ্টা করছি ।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৯
গল্প/কবিতা: ২৪টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - কষ্ট (জানুয়ারী ২০১৯)

কষ্ট
কষ্ট

সংখ্যা

বিশ্বরঞ্জন দত্তগুপ্ত

comment ১  favorite ০  import_contacts ১১২
শ্রাবণ মাসের এক বর্ষা ভেজা রাতে ,
আকাশ জুড়ে মেঘের ঘটা বারির মাঝে মাঝে ।
হটাৎ আমার মাথার উপর পরলো বিরাট বাজ ,
এ যেন আমার কাছে বিনা মেঘে বজ্রপাত ।
এতদিনের ছাতাটা আজ সরে গেল মাথার থেকে আজ
বাবা আজ চলে গেলেন দূরের আকাশে আজ ।

দুহাত দিয়ে জড়িয়ে ধরে অনুভব করি শরীর তখনও উষ্ণ
যে উষ্ণতায় ভর করে আমি ছিলাম পরম নিশ্চিন্ত ।
সারাটা সময় ছিলাম আমি বটবৃক্ষের ছায়ায়
বটবৃক্ষ হারিয়ে গেল জীবন থেকে আমার ।

ছোট্ট বেলায় মা কে খুঁজতাম তন্নতন্ন করে ,
বাবা বলতেন -- তোমার মা রয়েছেন
দূর আকাশে লক্ষ্য তারার মাঝে ।
মা কে আমার মনে পড়ে না , শুধু ছবিটাই তাঁর স্মৃতি ,
ছবির দিকে তাকিয়ে চোখের জলে কল্পনার জাল বুনি ।

ছোট থেকে বড় হয়েছি বাবার স্নেহ আর ভালবাসায়
মায়ের আসন পূরণ করেছেন মায়া আর মমতায় ।
সারাটা সময় জীবন যুদ্ধ করে গেছেন তিনি -
এই টুকু আশা -- আমি যেন সুখে থাকি ।
পরিশ্রম নিল না শরীরে তাঁর , ধরলো কঠিন ব্যাধি
তার ছোবলে হারিয়ে গেলেন তারার দেশে আজি ।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • নাজমুল হুসাইন
    নাজমুল হুসাইন দাদা কবিতাটিতে ছন্দ মিলাতে চেয়েছিলেন তবে কিছু ক্ষেত্রে মিলবিন্যাস থেকে সরে এসেছেন।অতি সম্মানের সাথে বলতে চাই,যে কোন একটা নিতী অনুসরণ করুন,হয় মিলবিন্যাস,নতুবা গদ্যধারা।যেমন মিল বিন্যাস হলে-মা কে আমার মনে পড়ে না , শুধু ছবিটাই তাঁর স্মৃতি ,
    ছবির দিকে তাকিয়ে ...  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . thumb_up . ১ জানুয়ারী
    • বিশ্বরঞ্জন দত্তগুপ্ত ভাই , প্রথমেই আপনাকে অনেক ধন্যবাদ কবিতাটি সময় দিয়ে পড়বার জন্য । আপনার গঠনমূলক সমালোচনা , দৃষ্টিভঙ্গিকে আমি সাদরে গ্রহণ করলাম । আমি মনে করি পাঠক / পাঠিকারাই হচ্ছেন যেকোন লেখার ক্ষেত্রে আসল মূল্যায়ন নির্ধারক আর আমি ব্যক্তিগতভাবে তাঁদেরকে যথেষ্ট শ্রদ্ধা করি । আবারও বলছি কবিতাটিকে সুন্দর ভাবে মূল্যায়ন করবার জন্য অশেষ ধন্যবাদ । অনেক শুভকামনা । ভাল থাকবেন ।
      প্রত্যুত্তর . thumb_up . ১ জানুয়ারী

advertisement