নিদ্রালু শহরে তোমার উপস্থিতি ছিল
মাঝ রাতের ভরা পূর্ণিমার চাঁদের মতন
খই ফোটানো জোসনার লাবণ্যে মাতোয়ারা সতীর্থ
তোমার জয়গানে উদ্বেল।
আমি কেবলি হেরে যাই তোমার অমিত বসন্তে
সে তুমি হঠাৎ হাওয়া যেন ভস্মীভূত ছাঁই
তারপর সুনশান নিরবতা
দরজায় আগল তুলে রাখা রুটিন ওয়ার্ক
সেই তুমি আজ বড় বেশি স্বতন্দ্র
আমার বুকে বেজে ওঠা রাকেশ চৌরাশিয়ার
কষ্টধুন বাঁশী।