ফাল্গুনের ভোরে পলাশ ফোঁটেনি

স্বাধীনতা দিবস (মার্চ ২০১৭)

সৈনিক তাপস
  • ৭০১
একটি পতাকা পেলে
মা খোকার জন্যে সজনে ফুলের বড়ি জমাবে,
বোনটি সকাল-সন্ধ্যে বকুলের তলে ফুল কুঁড়াবে
কাজ ফেলে পাশের বাড়ির টুনিদের সাথে গোল্লাছুট আর কানামাছি খেলবে
ভাইটি রথের মেলায় কেনা বাঁশি বাজিয়ে বাড়ি মাতিয়ে তুলবে।

একটি মানচিত্র পেলে
দুর্গা পুজোয় খুব ঢাক বাজবে, ধূপ জ্বালিয়ে আরতি হবে
মন্দিরের পূব দিকের খোলা মাঠটিতে মেলা বসবে
পিসিমা'রা নারকেল কুটতে আর মুড়ির মোয়া বানাতে ব্যস্ত হবে
মা-বৌদিরা সিঁথিতে লাল টুকটুকে সিঁদুর পড়ে প্রসাদের থালা নিয়ে মন্দিরে আসবে।

দেশটা হায়েনা মুক্ত হলে
দ্বিজেন কাকা আর গফুর চাচা হাটের দিন রাত করে বাড়ি ফিরবে
সুকুমার আর শামীম দল বেঁধে স্কুলে যাবে
ছেলে-মেয়েরা পড়বে আজ ঈদ মদিনার ঘরে ঘরে আনন্দ
জানবে কাল মাঘী পুর্ণিমা,ক'দিন পরেই আসছে বড়দিন।

কেন তবে বাবার কন্ঠ রুদ্ধ হয়?
মায়ের চোখ জলে ভেসে যায়?
ভাঙা মন্দির আর প্রতিমার দিকে তাকিয়ে পূজারীর বুক ভেঙে যায়
সুকুমার কেন ছুঁটে বেড়ায়, রাতের অন্ধকারে আশ্রয়ের আশায়?

তবে কি স্বাধীনতা আসেনি?
মানচিত্রে বাংলাদেশের সবুজ জাগেনি?
ফাল্গুনের ভোরে পলাশ ফোঁটেনি?
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
সৈনিক তাপস কবিতাটি পড়ার জন্যে ধন্যবাদ
মোঃ নুরেআলম সিদ্দিকী মনোমুগ্ধকর লাগলো । প্রতিবাদী ও সাহসী কবিতা । অন্ত্যমিলের ঘাটতিহীন লেখাটি সময়োপযোগী । ভোট দিয়ে গেলাম ।

১০ নভেম্বর - ২০১৬ গল্প/কবিতা: ৫ টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের আংশিক অথবা কোন সম্পাদনা ছাড়াই প্রকাশিত এবং গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী থাকবে না। লেখকই সব দায়ভার বহন করতে বাধ্য থাকবে।

প্রতি মাসেই পুরস্কার

বিচারক ও পাঠকদের ভোটে সেরা ৩টি গল্প ও ৩টি কবিতা পুরস্কার পাবে।

লেখা প্রতিযোগিতায় আপনিও লিখুন

  • প্রথম পুরস্কার ১৫০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • দ্বিতীয় পুরস্কার ১০০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • তৃতীয় পুরস্কার সনদপত্র।

আগামী সংখ্যার বিষয়

গল্পের বিষয় "ভয়”
কবিতার বিষয় "শুন্যতা”
লেখা জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২৫ আগষ্ট,২০২২