দুরন্ত কৈশোর কিচ্ছু মানে না,কুছ পরোয়া করেনা,স্বপ্ন দেখে,স্বপ্ন দেখায়,কেবল এগিয়ে চলে পরিনতির দিকে।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১২ অক্টোবর ১৯৯২
গল্প/কবিতা: ৩৫টি

সমন্বিত স্কোর

২.৪২

বিচারক স্কোরঃ ১.০৫ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৩৭ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - কৈশোর (সেপ্টেম্বর ২০১৯)

দুরন্ত কৈশোর
কৈশোর

সংখ্যা

মোট ভোট ১৬ প্রাপ্ত পয়েন্ট ২.৪২

নাজমুল হুসাইন

comment ১১  favorite ০  import_contacts ১৯৪
দিগন্ত সীমারেখা বাতাসের গতিপথ ধরে,
কৈশোরের আলো-ছায়া ঝলমল ঝলমল করে।
পিছু পিছু মান্ধাতা কূটনীতি কুঠারের ঘায়ে,
মিছেমিছি তরপায় চোট দেয় খুনরাঙা পায়ে।
তিলেতিলে জীবনের গতিপথ বদলিয়ে গেলে,
আলোঝরা ঝিলিমিলি তারকারা উড়ে উড়ে চলে।
এরপর দিনভর ক্ষরতাপ কামনায় পোড়ে,
দিকে দিকে জাগরনী জয়গান সাধনার তোড়ে।
গল্পের আলপনা আলেয়ার আলো মাখে গা্য়,
ইচ্ছেরা আষাঢ়ের মেঘজল রুপধরে ধায়।
বাঁকাপথ কাটাপেতে রক্তের হলি খেলে যায়,
কৈশোর সে হতাশার বুক চিরে কলিজাটা খায়।
ঠকাবার ঠিকাদারী গড়িমশি সুর তোলে গানে,
দেশ কাল সভ্যতার বীজ বোনা কিশরের প্রাণে।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement