তোমার আয়েশী ঢঙের খায়েশ,
লীলাবতীর নীল পদ্মের ঘ্রাণের নেশা,
দ্বিধাহীন পূরণ করেছি,তাজা রক্তের রঙ মূল্যে।
ধূণিত পশম উড়েছে,তুমিও উড়েছো-
দিক-বিদিক শুন্য গন্তব্যহীন লালসার পিছু পিছু।
অঙ্গনের মাধবী লতার ক্ষীন চাহনির অন্তরালে,
লুকিয়ে রয়েছ না জানি কত কাল।
কিছু না দিয়েই হয়েছ নিঃশেষ,
অথচ সব দিয়েছি বলেই আজ আমি পরিপূর্ন,
টয়টম্বুর রসের কলস।
কিছু পাবার আশায় গোলা ভরা চিটা ধান,
তোমায় ধরেছে মেঠো ইঁদুরের নেশা।
নেশাতুরা,তবু হেসে যাও রক্ত রাঙা চোখে।
খুন হব বলে ছুরি তলে,ছুতো খুজি জিজ্ঞাসার,
ঢং মেখে নিয়ে যাও সব,দাওনা কিছুই-
এ তোমার কেমন কৃপণতা?