লেলীহান আগুনের পরশ শিখায় জ্বলি
সুপারিশ আজ নেই কারো
ভালোবাসার তৃপ্ত যন্ত্রনায় কাতর আমি
একান্ত মনে ভালোবেসে যাই তবুও।
আমি হারাতে চাইনা তোমার গোলাটে মুখের হাসি
রাখালের বাজা সেই মিতালী বাঁশির সুরে
তোমাকে খুঁজে পাই যেন অনন্তকালে
অপেক্ষায় আছি আজও বহমান নদীর তীরে
দাউ দাউ করে ভেতরের জমা কষ্টগুলো
পুড়ে পুড়ে একাকার স্তুপে পরিণত
আচানক ভয়ংকর প্রতিক্ষণ যন্ত্রনায়
তবুও ভালোবাসি তোমায় উন্মক্ত।
খাঁ-খাঁ মরুভূমির বালুচরে
হেলে পড়া ভালোবাসার পথিক আমি
লুটে পড়ি সবুজের মাঠে
বিশ্রামের সহিত আশ্রয় খুঁজি তোমার মাঝে
সময়ের বেলা শুকিয়ে যায় অসময়ের পথে
নীড় হারা পান্থপথিকের ন্যায়
আমার অবেলায় তোমাকে নিয়েই স্বপ্ন দেখে
মরুভূমির খরতাপে নতুন শিকলে গজানো আমার দেহ
তৃষ্ণান্ত কাকের মতো তাকিয়ে আছি তোমার দিকে।