মায়াবিনী তোমার কাছে আমি চির ঋণী,
সৃষ্টির জন্ম-লগ্ন হতে যেমন ঋণী
পিতা মাতার কাছে ,
সূর্য যেমন দিনের কাছে, ফুলের কাছে মৌমাছি;
সাগরের টানে নদীর জলের খেলা যেমন ঋণী।
তেমনি তোমার ভালোবাসার পরশেই আমি পবিত্র।
তোমার ভালোবাসার আলিঙ্গনেই আমি বিশুদ্ধ।
তুমি পাশে ছিলে তাই এ জীবন স্বার্থক হলো;
তোমার নরম হাতের যাদুর ছোঁয়াতে,
পরম ভালোবাসার স্পর্শেই অতৃপ্ত মন
মুক্তি পেলো।
ক্ষুদ্র প্রেমের শিশির কণা
পেয়ে তোমার মুক্তা সোনা
হীরে হয়ে ঝলমলিয়ে উঠেছিলাম জ্বলে ।
এ জনমে আর তো বুঝি হবে না'ক দেখা,
দুদিন পরে ভুলে যাবে রেখে যাবে স্মৃতি রেখা।
রইবো এখন অনেক দূরে
ডাকবো না আর মধুর সুরে
তোমার সাথে লেনাদেনা
ফুরিয়ে গেল আনাগোনা।
কেমন করে ভুলে থাকবো তোমার দেওয়া
এই ঐশ্বরিক ভালোবাসার পবিত্র ঋণ;
মায়াবিনী তোমার কাছে সত্যিই আমি ঋণী।।