কখনো কি ছুঁয়েছ আমার অভিমান?
গোপন বারুদ কিন্তু সব সময় খুঁজেছ
ছিল না কোথাও এতটুকু রাগ
অনুরাগেই পুড়েছি সারাক্ষণ, বোঝোনি।
আশা ছিল উদ্ধার করে নেবে গভীর জল-মাছ
সিন্ডারেলা’র হারিয়ে যাওয়া একপাটি জুতো
অথবা সন্ধ্যাবেলা’র একাকী, ছলছলে মন
তুমি রইলে হিজ-বুল বাহার ক্ষয়ের খতিয়ান নিয়ে।
হাত ছুঁয়েছ অনাবিল সুখে প্রতিদিন
চোখ থেকে বালী সরিয়ে মুক্তোও কতক
আমায় চেনো বলে করতে পারো সোচ্চার দাবী
ভেতরের ক্ষত থেকে রোষানল সন্দেহ খুঁজেছ খামোখা।

বলিনি আমার বিষাদ ছোঁও, বলিনি কষ্ট দেখো
শিউলী ফুলের ম্রিয়মাণ বিষণ্ণ ঘ্রাণ তোমাকে ঘিরেই ছিল
তুমি বরষার কুহেলী মেদুর সুর চেনোনি
কোনদিন তাই ছুঁয়ে দিতে পারোনি ছেলেমানুষি অভিমান।