বিসন্ন গোঁধুলী ...
নেই কোন বিস্ময়.. স্বাভাবিক উত্তাপ..
ধুঁ ধুঁ বালু ঝড়.. মেঘ বালিকারও কোন দেখা নেই...
শেষবারের কোন স্মৃতি ধরে নেই এপিটাফে...
সেই যে যাত্রা করেছিল কৃষ্ণ পক্ষে!..
আর পেছন ফেরেনি...
সে এমনই হয়.. তার কথায় হতে হয়...
চন্দ্র গ্রহন নিয়ে কোন উৎসাহ পায় না কেউ এখন আর..
নীল প্রজাপতিটাও বসে আছে গুমরো মুখে..
কেউ তাকে আগের মত ভালবাসেনা,,
কোন জল পরীও তার পেছনে ছুটে না...
তারকা শূন্য আকাশ জুড়ে আছে ,
একটি মাত্র নীল নক্ষত্র.. বড্ড একা সে...
আল্পনার অশ্রু তার সাক্ষী হয়ে
নিরব চিৎকার করছে ...
বিসন্ন গোঁধুলী বিসন্নই থেকে যায় দিন শেষে ...
কেউ তার খোঁজ রাখেনা...
নিখোঁজ পাখির সাথে ; সে ও আজ
ওপার আকাশে.. নিখোঁজ হতে চায়...