গোলাপ হাতে নিয়ে পা দুটো কাঁপছে
ঠিক কি বাক্য করে ব্যয় তুলে দেব তোমায়
প্রত্যাখ্যানের আছে ভয়, কম্পিত হৃদয়
যদি ওঠো চিৎকার করে অসভ্য কোথাকার!
যদি তোমার সহপাঠী- পাঠিনীরা
একযোগে করে বসে আক্রমণ
যদি বলে ওরে ‘গোবরের পদ্মফুল’
গেঞ্জিটা উল্টো পরে করেছিস ভুল
চপচপ করে মেখেছিস চুলে
খাটি সর্ষের তেল, সুরেশ না রাধুনি?
আমি অজ্ঞান হয়ে পড়ে যাব মাটিতে
জানি এযাবত কেউ করেনি নিবেদন প্রেম বা ফুল
আমাদের পাড়ার বৃদ্ধ বাম নেতা বললেন
যুদ্ধ ও ভালোবাসায় অশোভন নয় কিছু
এগিয়ে দ্বিধাহীন হাতে গুজে দিবি চমকিত করে।
অতঃপর ঘাম ঝরিয়ে শক্ত হাতে কাপুনি থামিয়ে
আমি গিয়ে স্পর্ধাহীন দাড়ালাম তোমার সামনে ।।