সপ্নের ছায়ায়
বাচেঁ মোর আঁখি
তৃষ্ণিত ক্ষুধার্থ মন,
যাবো কি যাবো না
পাবো কি পাবো না
সদা সংশয় থাকে
কাটেনা মনের ঘোর,
দুঃসপ্নের ছায়া ঘন কালো
নিঃছিদ্র পথে আসেনা আলো,
রবিকর দিতে এসে আলো
কেন যে যায় জ্বালিয়ে পুড়িয়ে
ফ্যাকাসে মনের ধূসর দৃষ্টি
পোড়া মন সবুজ খোঁজে
শুভ্র কেশের মাঝে গুন গুন
বাতাসে শিষ দিয়ে যাওয়া,
যৌবন ফিরেও দেখে না
বার্ধক্যের ছাপে ভরা
কাঁচা পাকা দাড়ির বৈরিতা
ভারসাম্য রক্ষার জোড়াজুড়ি,
ছুটে চলার গতি মনের মাঝে
লাল কাপড় দেখানো
পাগলা ষাড়ের গুতোগুতি
তবে ছেড়ে না দড়ি উম্মদনায়,
ভাঙ্গে না পার উত্তল তরঙ্গে
ভয়ঙ্কর দড়িয়া যেন শান্ত সরোবর।