মধ্যরাতে কাব্যকার জেগে উঠে,
কেন যেন রাতের এ মুহুর্তে
মায়াবতীর টানা-টানা ভয়ার্ত নীল চোখ কবির
অনেক মায়াবী লাগে!
ভয়ের আবেশে ফ্যাসফ্যাসে গলায় কবি বলে,
‘মায়াবতী কেন জেগে আছ এত রাতে?’
মায়াবতীর পাল্টা জবাব!,
কবির কি ঘুম বলে কিছুই নেই! ‘ঘুমাও তুমি’
কবি বলতে থাকে, মেয়ে তুমি কি জান?
আমার বিস্ফোরিত চোখ দুটো এখনো তোমাকে খোঁজে!
বুঝে না বুঝে, এখনো শেষ রাতে
একরাশ আশা নিয়ে।
আমার কবিতার পাতা উল্টে চলে
শুধুই তোমাকে নিয়ে!
দেয়ালের আর্ট পেইন্ট থেকে মায়াবতীর উজ্জ্বল মুখটি
খিলখিল করে হেসে উঠে।