চোদ্দই মার্চ, তুমি আর আমি
যাচ্ছিলাম এক অজানা ভবিষ্যতের দিকে
হাতে হাত ধরে।
সবুজ নরম ঘাসগুলি গালিচা হয়ে বিছিয়েছিলো
আমাদের পায়ে,
দখিনা বাতাস চাদর হয়ে জড়িয়েছিলো
আমাদের গায়ে,
সোনালী রৌদ্র আমাদের কানে কানে বলছিলো-
এগিয়ে যাও। চরৈবতি, চরৈবতি.....
অন্ধকার থেকে অলোয়,
ঘৃণা থেকে ভালোবাসায়,
এগিয়ে যাও, এগিয়ে যাও, এগিয়ে যাও....
তুমি আমার হাতটা সজোরে চেপে ধরলে,
আমিও তাই ।
চোখে চোখে হলো এক বিচিত্র ইশারা,
দুটো হৃদয়ের তখন একটাই কম্পন।
ঠোঁটে ঠোঁট রেখে বলে উঠলাম
আমরা বাঁচবো, আমরা ভালোবাসবো.....
আরো কিছু হযতো বলতাম
ততক্ষণে তোমার জিভটা সাপিনীর মত জড়িয়ে ধরেছে
আমার সাপটাকে।
ভয়ংকর উত্তাপে জ্বলে উঠলো মোমবাতি
উদযাপিত হলো তোমার জন্মসন্ধ্যা।