অবুঝ ছিলাম যখন বুজি নাই কিছু
তোমার আচল ছায়াই রেখে ছিলে
কত যত্ন করে
হাঁটিবার যখন শিখি তোমার হাত ধরে
হোঁচট খাব বলে রাখতে চোখে চোখে
তোমার হাতেই খাবার খেতে শিখি
তোমার হাতেই লেখতে শিখি
তোমার মুখ থেকেই শিখি পড়তে
ব্যথা পেয়ে কানতাম জাতি কভু কানতাম আমি
তুমি দিতে সান্ত্বনা
চুপ হয়ে যা সাত রাজার ধন লক্ষ্মী সোনা
তোমার বুকের মাঝে যে সুখ পাই
সারা বিশ্ব ঘুরে দেখি সেই সুখ নাই
আর কথাও নাই
কত ব্যথা পাই কত কষ্ট পাই
তোমার নাম মুখে নিলে সব ভুলে যাই
মা মা বলে ডাকি যখন
সর্গের সুখ পাই তখন
শত করি আমি পুণ্য কাজ
লাখ কোটি টাকা ও করি যদি দান
তোমার একটু দয়ার কাছে
নেই তার কোনো প্রতিদান