সইছেনা আর সুখে থাকার শোক
হৃদয় পোড়া ব্যাথার কথাই হোক
কষ্ট করুণ লাল জমিনে দুঃখ বৃক্ষ সারি
পাতায় পাতায় ফুটে হাসে নীল বেদনা তারি
চিনচিন করে গন্ধ বিলায় সব পুড়ে ছারখার
ছায়ায় ছায়ায় শূন্যে ভাসে কষ্ট হাহাকার
অস্থিরতার ধাওয়ায় পালায় শান্তি মেঘের ভেলা
কালো হাওয়ায় উধাও সুখের উষ্ণ ওমের মেলা
না কোন রূপকথা কিংবা কল্পগল্প নয় সত্যি সত্যি এবারের আন্তর্জাতিক কষ্ট মেলায় নিলামে উঠছে ব্যায়বহুল এই ব্যাথার বাগান। জলের দামে বিক্রি হচ্ছে প্রতিটি দুঃখ গাছ। অতি সস্তায় পাওয়া যাচ্ছে ব্যাথার গুচ্ছফুল। না পাওয়া বা সব হারানোর কষ্ট পাবেন খুব সহজেই। প্রত্যাশা ও প্রাপ্তির ব্যবধানের শূন্যতা মিলবে প্রতিটি স্টলেই।
যথন তোমায় কেউ বোঝে না একলা থাকো
এমন ব্যাথা ভুরিভুরি
শুকনো স্মৃতি যা কখনো ফিরবে না আর
এমন ব্যাথাও শেষ হলো প্রায়
স্বাগত হে বন্ধু,
উদার আমন্ত্রণ এ কষ্ট মেলায়।
বাগানটিতে অভিজ্ঞ মালির দক্ষ হাতে সমূলে উৎপাটিত হয়েছিল স্নেহের আগাছাগুলো। অশ্রুফোটায় দমিত হয়েছে সুখের পোকা। সময় মতোই দেওয়া হয়েছে বঞ্চনা আর অনিয়মের রাসায়নিক সার। জৈবসারের জোগান দিয়েছে কপালগুণে পাওয়া জনমদুঃখী কপালখানা। বাস্তবতার দেয়াল থাকায় কখনও ঢুকতেই পারেনি ছটফট করা ভালবাসা নামক দুঃখখেকো প্রাণীরা।
সুতরাং পরম নিশ্চিন্তে হাতের নাগালেই পাচ্ছো পৃথিবীসেরা এই কষ্টকানন!
তবে দেরি কেন আর!
ভাবার কী দরকার!
সুখের দামে দুঃখ বৃক্ষ কিনবে
তিলোত্তমা ব্যাথার বিশ্ব চিনবে।