অনেক কষ্টের পর আমরা বাংলা ভাষা পেয়েছি। সেই বিষয়টি আমার কবিতায় ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১ ডিসেম্বর ১৯৭৯
গল্প/কবিতা: ১৭টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftবাংলা ভাষা (ফেব্রুয়ারী ২০১৯)

রক্তে কেনা বাংলা ভাষা
বাংলা ভাষা

সংখ্যা

হুমায়ূন কবির

comment ০  favorite ০  import_contacts ১৪৯
একুশ তুমি চৈতী দিনের
তাজা রক্ত ঝরা!
রাজপথে দামাল ছেলের
লাশ লুটিয়ে পড়া।

একুশ তুমি ছেলেহারা
মলিন মায়ের মুখ,
বৃদ্ধ বাবার দীর্ঘশ্বাসে
কষ্টে ভরা বুক।

একুশ তুমি রক্ত দিয়েে
একটি ভাষা কেনা!
বিশ্বতরে নতুন রূপে
বাংলাভাষা চেনা।

একুশ তুমি মাতৃভাষায়
মুক্ত কথা বলা,
পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙ্গে
স্বাধীনভাবে চলা।

একুশ তুমি মায়ের মুখে
মধুর সুরে ডাকা,
বোনের হাতে লাল কলমে
রঙিন ছবি আঁকা।

একুশ তুমি নির্মল বাতাস
নিঃশ্বাসে প্রাণ ভরা,
খোকা-খুকুর পাঠ্য বইয়ে
অ আ ই ঈ পড়া।

একুশ তুমি সকল দেশের
সকল জাতির ভাষা,
কুর্নিশ আজ তোমার তরে
জানাই ভালোবাসা।

একুশ রবে স্মৃতির পাতায়
চির অম্লান,
দামার ছেলে জীবন দিয়ে
রাখলো মায়ের মান।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

    advertisement