এইতো যেন কিছুদিন হল ; কিন্তু বিয়াল্লিশ বছর হয়ে গেল?
এই কাশফুলের গ্রানে তোমার সমস্তু সত্তার পদচিহ্ন মিশে আছে,
তোমার অপেক্ষা -মাখা চোখে কী যে অভিমানী হাসির ফোয়ারা! দেখেছি আকাশে সুখেরই ঝর্না,
আর অশান্ত পাখিদের আনাগোনাও থেমে যেত নিমিষে - তাহাদের কুর্নিশের বেলায় তুমি আমাকেই দেখিয়ে দিতে, আমি হারিয়ে যেতাম তোমার নুপুর পায়ের কোলাহলের স্বর্গারণ্যে।

স্মৃতির প্রান কে নিজের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে বাচিয়ে রাখতে ইচ্ছে করে আমার,
এই বেলায়, বিদায়ের সাজে সেজে যেতে হবে, পাতালের বিছানায় আকাশের ট্রেন মিস করার গোপন ইচ্ছে থাকলেও সেই ট্রেন যাত্রী বিহীন ছাড়েনা!
এখন মনে হচ্ছে, সমস্তু সত্তায় তুমিই আমার কৈশোর প্রেম, বাল্যপ্রেম, যৌবন -প্রেম এবং তুমিই আমার শেষ প্রেম, বিশ্বাস তোমার কাছে ; সেই ট্রেনে উঠতে আর দ্বিধান্বিত নই কেননা আমিও আজও তোমার।