লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৩১ ডিসেম্বর ১৯৬০
গল্প/কবিতা: ২২টি

সমন্বিত স্কোর

৪.০২

বিচারক স্কোরঃ ২.২২ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৮ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - স্বাধীনতা (মার্চ ২০১৬)

কাংখিত স্বাধীনতা
স্বাধীনতা

সংখ্যা

মোট ভোট ২৭ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৪.০২

হাসনা হেনা

comment ১৮  favorite ০  import_contacts ৯০৮
প্রতিদিন যে সূর্যটা পূবের আকাশ আলোকিত করে উদিত
হত বিদূরিত করে রাতের আঁধার; সেই চিরচেনা সূর্যটাই
একদিন নিয়ে এল অন্য রকম এক নতুন, নির্মল উদ্বেল,
উচ্ছ্বসিত আনন্দময় সিগ্ধ সোনালী সকাল।

জয়ধ্বনি আর জয়গানে মুখরিত আকাশ বাতাস, মাঠ ঘাট প্রান্তর,
বিবর্ণ সবুজ সতেজ লাবণ্যতায় ঝলমলিয়ে উঠল সহসা, ক্লান্ত,
বিদগ্ধ নদীর ¯স্রোতে বেজে উঠল কাংখিত বিজয়ের কলতান,
ভীত সন্ত্রস্ত পাখিরা ডানা মেলল মুক্ত আকাশে গেয়ে সুখের গান ।

রক্ত ভেজা মাটি আর বিদগ্ধ অরণ্যে এ কোন পুলকিত প্রভাত,
বারুদের ঝাঁঝালো ঘ্রাণ আর অসহায়-বিদ্ধস্ত মানুষের আহাজারী
আর আর্তনাদে বিষন্ন বাতাসে এ কোন শান্তির সুর, বিবর্ণ ঝরা
ফুলে এ কোন স্বর্গীয় রঙ্গিন উচ্ছ্বল উদ্দাম হাসি।

ফুল হেসে বলল, প্রিয় স্বাধীনতা এসেছে বিজয়ীর বেশে, পাখি গেয়ে
বলল, প্রিয় স্বাধীনতা এসেছে, বাতাস - নদীরা সুর তুলে বলল, বাংলায়
কাংখিত প্রিয় স্বাধীনতা এসেছে, স্বাধীনতা এসেছে লক্ষ লক্ষ বিনষ্ট প্রাণের
রক্ত সাগর পেড়িয়ে, স্বাধীনতা এসেছে মা বোনের অমূল্য সম্ভ্রম
হারানোর বিষাদিত লজ্জা আর হাহাকারের বন্ধুর পথ বেয়ে।

প্রিয় স্বাধীনতা একদিন এসেছিল সুখের স্বপ্ন নিয়ে সবার তরে, এসেছিল
সবুজের বুকে চেতনার রক্তিম সূর্য জ্বলা পাতাকা নিয়ে; পুড়িয়ে দিতে মানুষে
মানুষে ব্যবধান, ঘুচিয়ে দিতে মায়ের যত দুঃখ, এনে দিতে বঞ্চিত মানুষের
অধিকার,জাগিয়ে তুলতে সবার প্রাণে মানবতা আর ভালবাসার অমিত শক্তি।

সে বিজয়ী-আরাধ্য স্বাধীনতা কেন আজ ম্রিয়মান? কেন অপশক্তির আগ্রাসনে
ক্ষত বিক্ষত? প্রিয় স্বাধীনতা কি কেবলই আবেগময় সুখের শ্লোগান? কেবলই
ক্ষমতাধর শক্ত হাতের অসহায় খেলনা?

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement