এখন তুমি অন্যরকম নারী,
স্নিগ্ধ মায়ায়, শীতল ছায়ায়,
চপল পায়ের নিবিড় ছোঁয়ায়,
হারিয়ে যাওয়া শৈশব আজ,
দারুণ আনাড়ি।

হাত বাড়ালে পাইনে ছুঁতে তোমায়,
বক্ষ বাধি বিশাল ব্যাথায়,
হৃদয় ঢাকি সচ্ছ কাঁথায়,
কিশোরী তোর কান্না বুঝি ঘূমায়?

নূপুর ছোঁয়া শ্যামলা রোদে,
উদাস দুপুর গুমরে কাঁদে,
দীঘির জলে আছড়ে পড়ে ঢেঊ...
কিশোরী তোর লজ্জা ভেঙ্গে, ডেকেছিল কি কেউ?

আজ হিসেব নিকেশ হবে,
কে জিতেছে কবে,
ঠোঙা ভরে সুখের বরষ,
হৃদয় নিংড়ে দেবে।

কিশোরী তুই চাসনে পেছন পানে,
ঢং করেছে, সং সেজেছে,
জীবন জঙে পণ করেছে,
কেউ জানেনা শুধু তোর ওই,
ছোট্ট হৃদয় জানে।