কাঁদবোনা, কাঁদবোনা যদি অনেক দুঃখও দাও
স্থবির পাথর আর মৃত্তিকায় তাপদাহ পূনর্বার
অমরত্ব পেয়ে বাবা 'শহীদ' নামে পরিচয় যার
তব সে অভিন্ন রক্তের দ্রোহে ভাসিয়ে যাও।

আসবোনা, আসবোনা যদি সব ফিরিয়ে দাও
বোনের সম্ভ্রম, গোয়াল গরম্ন ও ফসলের মাঠ
হায়েনার তিরস্কারে যবে আর একটি বিভ্রাট
রঞ্জিত খুনের সে স্রোতে ভাসাবো অধরাও।

বাঁধবোনা, বাঁধবোনা মন সপ্তমায়ার কুহলিকায়
অধিকারের মিছিলে মশাল জ্বেলেছি এতদিন
পাহাড়ের চূড়া মোড়ানো আরও আরও যত ঋণ
শুধে নেব, ওরে পীড়িতের পাল উড়ে আয়...

হারিয়েছি, হারিয়েছি সব অশ্রসজল নদে
গঙ্গায় ভাসিয়েছি অবোধ ভাবনার জাল
সে জাল জুড়ে আজ শকুনের শৈবাল
কূলহীন ঢেউয়ের মাতম দ্বিধার দ্বৈরথে।

চাইবনা, চাইবনা হাত তুলে দরবারে করম্নণার
একাল, সেকাল মহাকালব্যাপ্তি
এতকিছু পর পিতৃহারার মাতৃভূমি প্রাপ্তি
পেয়েছি রক্ত ঋণে মাথা উঁচুর অধিকার।