সততঃ মনে পরে তোমায়
প্রতিটি জাগরণে, প্রতিটি স্পন্দনে।।
রক্তিমছটার আবেগময় ঘণমুহূর্ত আর
শ্বাসরুদ্ধর পরিস্থিতি যখন প্রতিটি
স্পন্দনে স্পন্দনে শিহরণ ঘটায়, তখনই
নীরব বিপ্লবী মনে তোমার অস্তিত্বের ছন্দময় উত্থানের
এক শোভা বাড়তি রঙ দেয় অজানা জগতকে।।
অসীম নীরবতা পেলবময় রাত্রির, বদ্ধ দরজায়
কুলুপ লাগায় অকৃত্রিম শোভায়, এক বিপ্লবের
নীরে, যার প্রতিটা ক্ষণে আর জমিনের
প্রতি ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে খোদাই রয় তোমার নাম।
তোমার আদি এবং অকৃত্রিম নামই পথ বাতলে
দেয় পথ হারা পথিককে, আগলে রাখে
অভাবীর অজানা আশাকে।
আশান্বিত মনকে আশার আলোর
রঙছটা এনে দেয় তোমারই নামের আদ্যক্ষর।।
সততঃ জপি তোমারই নাম এক অজানা
জগতের ভাবুক বাসিন্দা হতে, অপার
পারাবত পেরতে সোনালী আকাশের মহেন্দ্রক্ষণে।।