সারা বসন্ত একসাথে
আমাকে কত স্বপ্ন দেখালে
কত শোনালে গান পাতার বাঁশিতে…

তাই আমিও ছিলাম কাছাকাছি
সন্ধ্যে হলে উড়ে আসতাম তোমার বুকে
বুকের মাঝে ডুবে যেতে যেতে
কতবার চাদরে মুখ ঢেকে বলেছি ‘ভালোবাসি’।
কতবার ফিরতি বাসে দেরী করে
সঞ্জীবনী চা’য়ে দিয়েছি চুমুক।
কখনো সবুজ ঘাসে পা ডুবিয়ে বসে
অজস্র সময় শুধু ছিলো কথা আর কথা।

কতবার এইসব হবে ভেবেই ঘুমিয়েছি হেসে...

রুপা!
অথচ এখন মহাদেশ ঘুরেও
হিসেবে মেলেনি হাসি আর দীর্ঘশ্বাসের...
কে যেন লিখে গেছে, এখন তো ভরা শ্রাবন
... ডুবে দেখো না, বুকের মাঝে কত অসুখ, কত কারন...