লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৭ জুন ১৯৯০
গল্প/কবিতা: ২৩টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

১৯

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftবাংলা ভাষা (ফেব্রুয়ারী ২০১৩)

প্যাচাল ১৮
বাংলা ভাষা

সংখ্যা

মোট ভোট ১৯

সামাউন বিন আজিজ

comment ১১  favorite ৪  import_contacts ৮২৫
বাঙালীরা গাল দেয়

শয়তান শাসাতে

প্রতারক প্রতিরোধে

সামান্য আশাতে

কাউকে বার্তা দেয়

মহাভালবাসাতে

কৌতুকও যোগ করে

যদি চায় হাসাতে

কখনো ফন্দি করে

শত্রুকে ফাসাতে

নিজেরাও ফেসে যায়

জীবনে্র পাশাতে

তাই

যা ঘটে বা রটে

বাঙালীর বাসাতে

সে বিনিময় সব হয়

বাংলা ভাষাতে

সে বিনিময় কখনো

আগ্রহী চিত্তে

খানিকটা জমা হয়

কালের সাহিত্যে

সেটা হোক হাজার দু

বছরের পুরনো

বাংলার হালচাল

সামাজিক টকঝাল

সবই পাবে নানাভাবে

সেই তাকে কুড়োনো

যার প্রমাণটায় ইতিহাস সাড়া দেয়

অচেতন বাঙালীকে আচানক নাড়া দেয়

প্রাচীন চর্যাপদটায়

প্রসাদ শাস্ত্রীর

কঙ্কাল অস্থির

মতো খুজে পাওয়া

সেই চার পদটায়

যে চারে একাধারে

তিনই অপভ্রংশে

প্রাচীন বাংলা লেখা

শুধু ছিল একঅংশে

যেটি ছিল পুথি এক

এখন ঝামেলা দ্যাখ

ধৈর্যের ভাঙলো সঞ্চয়

‘চর্যাচর্য বিনিশ্চয়’

এর কি ভয়াবহ নামটা

ছুটে

গেল ঘামটা

শীতরাতে মেলাতে এ অধ্যায়

এতকিছু সত্ত্বেও

এদের

তত্ত্বেও

আলোচনাজনিত

এক মহাবই প্রণীত

করেছিল শুনিত

সুনীতিচট্টপধ্যায়

পরে এ পুথি পড়ে

ধর্মমত ধরে

প্রথম কে আলোচনা তুললা

তিনি মুঃ শহীদুল্ললাহ

তাই

আমাদের মায়েরা

ভাবী ও ভায়েরা

উৎসব কোলাহলে

অস্থির দোলাচলে

যে বাংলা শব্দের খরচায়

থাকে শান্তিঅশান্তি চর্চায়

সে ঘটনাটা শুধু নয় আজকের সকালের

লাখ লাখ সকালেরা!

হ্যা লাখ লাখ সকালেরা সাক্ষী ওহালের

যার শুরু হতো এক মহাভাষাতে

বাঙালীর রাগভালবাসাতে।


*********************************

১৮৮২সালে রাজা রাজেণ্দ্রলাল মিত্র sanskrit buddist

literature in nepal নামক বইয়ে নেপালের বৌদ্ধতাণ্ত্রিক

সাহিত্যের কথাপ্রকাশ করেন। প্রসাদ শাস্ত্রী তার বইগুলো পড়ে

অনু্প্রাণিত হন।সে চাচাজান নেপালের রাজগ্রণ্হাগার থেকে ১৯০৭সালে

বাংলা সাহিত্যের কত্গুলো পদ আবিস্কার করেন যার একটি ছিল

চর্যাচর্য বিনিশ্চয়।পরে ডঃ সুনীতি চট্টপধ্যায় ও ডঃ মুঃ শহীদুল্লাহ এ

বিষয়কে আরো এগিয়ে নিয়ে যান।এ ভাষার মাসে তাদেরকে সালাম।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • এফ, আই , জুয়েল
    এফ, আই , জুয়েল # ছন্দের তালে তালে সুন্দর কবিতা । শেষে একটা দারুন ইনফরমেশন । = ৫
    প্রত্যুত্তর . ১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৩
  • এশরার লতিফ
    এশরার লতিফ আপনার নিজস্ব ধারায় আরেকটি অসামান্য কবিতা...বাংলা ভাষার ইতিহাসটা তুলে ধরেছেন দারুনভাবে...বাংলা ভাষায় যে শুরু থকেই ৭৫% অপভ্রংশ শব্দ ছিল -এই তথ্যটিও গুরুত্বপূর্ন....অনেক শুভেচ্ছা...
    প্রত্যুত্তর . ১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৩
  • নৈশতরী
    নৈশতরী প্রিয়তে রাখলাম পরে আরও ভালো করে পড়ে দেখবো তাই ...।
    প্রত্যুত্তর . ২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৩
  • শাহ আকরাম  রিয়াদ
    শাহ আকরাম রিয়াদ অনেক সুন্দর করে সুরে সুরে পাঠ করলাম... অনেক ভাল লাগল এই ধারাটি....
    প্রত্যুত্তর . ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৩
  • রোদের ছায়া
    রোদের ছায়া প্যাচাল এর মাঝের এতো তথ্য দিয়েছেন আর ছন্দ ধরে রেখে সুদীর্ঘ কাব্য সত্যি কষ্টসাধ্য কাজ । অনেক ভালো লাগলো , প্রিয়তে থাকবে ।
    প্রত্যুত্তর . ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৩
  • তাপসকিরণ রায়
    তাপসকিরণ রায় ছান্দিক গতি নিয়ে কবিতা এগিয়ে গেছে,দীর্ঘ কবিতা,বিস্তৃত ভাবনা উঠে এসেছে এতে।কোন ঐতিহাসিক গুরুত্ব এর মধ্যে নিহিত--শুধু কবিতা দেখতে গেলেও বলতে হয়,সুন্দর ভাবনা প্রতিষ্ঠিত একটি লেখা।কবিকে ধন্যবাদ জানাই।
    প্রত্যুত্তর . ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৩
  • ওয়াছিম
    ওয়াছিম ভালো লাগলো , আপনার কবিতা।
    প্রত্যুত্তর . ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৩
  • মিলন  বনিক
    মিলন বনিক রং রূপ রস গন্ধ সবই আছে...আছে তথ্য...অনেক ভালো লাগলো...শুভ কামনা....
    প্রত্যুত্তর . ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৩
  • মোঃ গালিব মেহেদী খাঁন
    মোঃ গালিব মেহেদী খাঁন কবির ধন্যবাদ প্রাপ্য। আর তা দ্বিবিধ কারনে। শুভকামনা রইল।
    প্রত্যুত্তর . ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৩
  • আবির
    আবির ছন্দের কাজ অসাধারণ আর তথ্যও ছিল অনেক বেশি। অনেক অনেক ভাল লাগলো, প্রান্তিক। :-)
    প্রত্যুত্তর . ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৩

advertisement