মা -
দেখেছি যারে দুচোখ ভরে
জন্মের পর থেকে শত বছরে,
শুনেছি তার অনেক কথা
তার মহিমা তার স্নেহ গাঁথা ।
পিতা সেতো ভ্রুনের জনক
আপন আনন্দে ভরে যায় মাতৃ কানন,
মা- সে যে গর্ভধারিণী
স্ব-হাস্যে নিয়েছে শত ব্যথা বুকে টানি ।
দিনের পর দিন রাতের পর রাত
সন্তানের তরে থেকেছে সজাগ,
সাধ-সাধনা -স্বার্থ ভুলে
গর্ভের তরে করে যায় মোনাজাত।
দেহের ভিতরে দেহ পোষে রাখা
এমন দৃষ্টামত আর কোথাও কি আছে ?
অনেক পুরুষ তারে দিয়ে যায় অপবাদ অমতরালে
মা কি পারে সন্তানেরে ফেলে দিতে লাজে ?
আমি সন্তান ; সেই পুরুষ-পিতা
ভুলে গেছি মায়ের দুঃখ -ব্যথা
মেতে আছি সদা আপন অভিলাষে
ভুলে মায়ের মাতৃত্ব কাল ।