শীত শীত হিম হিম
ঠাণ্ডা এলোরে
ছেলে বুড়ো কুপোকাত
কুয়াশার চাদরে ।
সূর্য্যের দেখা নাই
মামা রাগ করেছে
বাইরে যাওয়া মানা
বাবু শুধু কাঁদছে ।
চারিদিকে রুক্ষতা
সবি যেন কাঁপছে
খাওয়া নেই গোসল নেই
ওম সবাই খুঁজছে ।
স্কুলে যেতে হবে
মা আর ডাকে না
ফজর পড়ে শুয়ে থাকে
নিজেই তো ওঠেনা ।
তাইতো মজা খুব
দিনরাত শুধু ঘুম
আনন্দেই কাঁটছে ।
হঠাত্‍ সকালবেলা
টিভির খবরে
গরীবদের দুঃখ দেখে
মন খারাপ হলোরে ।
তারপর চুপিচুপি
বস্তিতে গেলাম
নতুন জামাটা
একজনকে দিলাম ।
আমার সাধ্য যা
আমিতো করেছি
এই ভেবে ছোট্ট মনে
খোদাকে স্মরেছি ।
আপনারাও বড়রা
একত্রে বুদ্ধি করে
চুপিচুপি যাবেন চলে
সুখ পেতে বিলিয়ে ।