লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৫ মে ১৯৭৮
গল্প/কবিতা: ৭৮টি

সমন্বিত স্কোর

৪.৭৮

বিচারক স্কোরঃ ২.৪৫ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ২.৩৩ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftইচ্ছা (জুলাই ২০১৩)

এই সব ঠুনকো অভিলাষ
ইচ্ছা

সংখ্যা

মোট ভোট ৬৬ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৪.৭৮

মামুন ম. আজিজ

comment ২৭  favorite ৩  import_contacts ১,৩৩০
বড় আকারের পরিবর্তন ...এইতো সমসাময়িক অভিলাষ!
অথচ বৃষ্টির কোন এক বিন্দু ধরে ঝুলে পালানোর ইচ্ছা...
তখন আর মনে ছিল না -বৃষ্টি বিন্দু আছড়ে পড়ে ভূমিতে
ওটাই তার অভিলাষ, ওটাই তার স্বার্থকতা
সে স্বার্থকতায় মরে যায় বৃষ্টি বিন্দুর জীবন
আমার তো সজীব জীবন, কোন পরিবর্তন যদি পেতাম
বৃষ্টির ফাঁকে ফাঁকে সরু সরু গলি, বাতাসে সে সব গলি
ময়ূরের বর্ণালী পাখানার মত বেঁকে বেঁকে যায়, দৃষ্টি বিভ্রম হয়
ময়ূরের পাখনা বড্ড রঙিন , ইচ্ছা সেখানে মোড় নেয়
যেমন আবরণে আভরনের নান্দনিকতা আর রঙের ছোঁয়ায় কোন
ললনা কোন সিদ্ধ তারুণ্যে ঘুরিয়ে দিতে পারে জীবনের মোড়
কখনও ইতিবাচক ভাবে আর কখনও নেতিবাচক খড়কুটোয়।
শুকনো খড়কূটোও কোন প্রাণীর বাঁচার অবলম্বন হয় দেখে
প্রথমবার ভেবেছিলাম এইতো শেষ নয় ধুলোয় গড়াগড়ি
যেকোন পটেই রোদ চুমতে পারে কিংবা মেঘের ছায়া
তাই কিসের রঞ্জিত বাড়াবাড়ি এই ঠুনকো সব সাধের টানে,
যারা মানে তারও মরে যায় আর যারা মানে না সত্যি তারাও।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement