এখন যে তুমুল প্রতিবাদ আর আন্দোলনের তুফান দেখছি, তাতে এই আঁধারে ঘিরে থাকা দেশটিতে যারা আলো আনতে চাইছে, সেই ছাত্রগুলোর জন্য লেখাটি উৎসর্গ করেছিলাম। এবারের বিষয় যেহেতু আঁধার, এই তুমুল প্রতিবাদে যদি আমরাও কন্ঠ না মেলাই তবে তা অন্যায় হবে।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৭ জুলাই ১৯৯৩
গল্প/কবিতা: ৪৭টি

সমন্বিত স্কোর

৫.০১

বিচারক স্কোরঃ ২.৮৫ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ২.১৬ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - আঁধার (সেপ্টেম্বর ২০১৮)

সূর্যবালকের জন্য অপেক্ষা
আঁধার

সংখ্যা

মোট ভোট ১৮ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৫.০১

জলধারা মোহনা

comment ২২  favorite ০  import_contacts ২৮৯
সূর্যবালক,
সহস্র লাশের বিছানায় রক্তাক্ত চাদরে নিজেকে জড়িয়ে
যখন নিশ্চিন্তে পাশ ফিরে ঘুমাচ্ছিলাম আমরা..
তোমরা তখন হঠাৎ জেগে উঠলে তারুণ্যের উচ্ছ্বাসে,
রাজপথে নেমে ঢেলে সাজাতে শুরু করলে দেশটাকে!
দানবের ভয়াল থাবায় ছত্রভঙ্গ হয়েও কেমন করে যেন
সবাই মিলে হয়ে উঠলে এক অভিন্ন মহাযোদ্ধা..
অন্তর্জালে ব্যস্ত থাকা শহুরে ছেলের তকমা গায়ে নিয়ে
কি অসম্ভব আলোকিত প্রতিবাদে তোমরা সরাতে চাইছো
বহুদিনের পুরোনো অনিয়মের আঁধার..
আর আমরা!
চোখ বন্ধ করে এখনো সবকিছু এড়িয়ে যাচ্ছি,
মুখ বন্ধ রেখে চুপচাপ এইসব দূর্নীতি মেনে নিচ্ছি,
কান বন্ধ করে জলজ্যান্ত সত্যিগুলোকে গুজব বলছি,
আর সুখী মানুষের অভিনয়ে নিজেকে লুকিয়ে থাকছি!
চুপিচুপি বলি তোমাদের..
কাউকে যেন বলে দিওনা কথাটা!
আমরা সবাই আঁধারগ্রস্থ হয়ে অপেক্ষায় ছিলাম,
কোন একদিন তোমাদের আলোয়
আলোকিত হবো বলে!

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement