শৈশব বড় সুন্দর ছিল
ভাবনা ছিল না, ছিলনা কষ্টের আবাহন
নির্দোষ আনন্দে, সরল আবেগে ভেসে চলা
আনন্দ সাগরে নিশ্চিন্ত অবগাহন

নতুন খেলনায়, বাবার কিনে দেয়া সাইকেলে
বন্ধুদের সাথে খেলাধুলায়
মামাদের পিছে ঘুরে ঘুরে বই পড়িয়ে দেয়ার
তীব্র আকুতিতে

সরলতা লুকিয়ে ছিল বিশ্বাসে, ভালবাসায়
দাদুর কাছ থেকে পাওয়া চিঠির গন্ধে
লাইনে লাইনে দাদুর অমৃতবচনে
ভালবাসায় ঘেরা সরল হৃদয়

পূজোয় পাওয়া রঙিন আনন্দমেলা
কাকাবাবু, মিতিন মাসি, ফেলুদা
মুক্তো দানার মত কুড়িয়ে পাওয়া
নির্মল, উজ্জ্বল, রঙিন, অধীর

দাদুর বাড়িতে মিঠু নামের কুকুরছানা
একবার ডাকলেই যে ছুটে আসত
তাকে নিতেই হবে সাথে
সেই অবোধ কুকুরছানার মাঝে

আমি এখন সারল্য হারিয়ে ফেলেছি
অভিজ্ঞতার পঙ্কিলতায়, নিষ্ঠুর বাস্তবে
হারিয়ে গেছে আমার উচ্ছলতা
আমি এখন তীর্থের কাকের মত সরলতা খুঁজি

মুখোশ পরা ভালবাসায়, পচা শামুকে
জংধরা অনুভূতিতে, পাপী মনে
আমি এখন তৃষিতের মত সরলতা খুঁজি
আঘাত পাই কিন্তু খোঁজা শেষ হয়না

অভিজ্ঞতার চাপে পিষ্ট হতে হতে এখন আমি ক্লান্ত
ক্রমাগত অভিজ্ঞতার যন্ত্রণা নিতে পারছিনা
এখন একটু অবুঝ হতে চাই, ছোট হতে চাই
সারল্যের মিষ্টি ঘ্রাণ নিতে চাই