এইতো বেশ আছি-এই ঘর-আমরা সবাই
কতটা মন্ত্র জানো-সর্বহারার এঘর ছুঁয়ে ওঘর ছুঁয়ে
সকাল বিকাল যাত্রাপথ তৈরি আছে অনেকদূরে-
ততটা দূরত্ব আগামীর পথ –হতাশায় নয় নরক যন্ত্রণা
বরণ করে আসন দিয়েছো তুমি,যতটা মন্ত্র জানো।

আকাশ দিয়েছো তুলসীর উঠোন জুড়ে-এইতো বেশ আছি।

দোর গোঁড়ায় পা,সন্ধ্যা বিকেল মরছে সময়,কাঁদছো কেন
মাটির স্পর্শে কাঁপতে শুরু জন্ম লেখা ঠোঁটের ভাঁজে
সব কিছু তোর-চোখের মতো-বলবে মানুষ যা নেমে যা।

এইতো বেশ আছি-এই ঘর-আমরা সবাই
জীবনগুলো নয়তো সহজ গলিত লাভা যোগবিয়োগের।

মরুৎদানের স্তম্ভ প্রাচীর শঙ্খবেলায় ছায়ারুপী
একটু খানি নাও জিরিয়ে।