নারীর কুসুমের দুর্ভেদ্য ভাষা ভেদ করে
তোমার স্পর্শে হীম হল নারীর যৌবন -
যৌবনের উত্তেজনা-মধুর বেদনায় ,
অতঃপর আমার জন্ম ।

নগ্নতার মাঝে আমি ছিলাম আরও নগ্ন;
আমার কষ্ট বুঝে বুকের ভেতর বানালে কুঁড়েঘর ।

রোদ-বৃষ্টিতে,ঝড়-তুফানে সেই ঘরে
আশ্রয় নিয়ে পেয়েছি শ্বাস-প্রশ্বাসে
মমতার স্বাদ -মাথায় হাত ।

স্বপ্নে বিভোর হয়ে সেই কুঁড়েঘর ভেঙে
একদিন গড়ে তুলি বহুতল দালান-
নিজের সুখের কথা ভেবে !

আজ সেই দালানের ইটের ফাঁকে খুঁজি
বাইরের রোদ-বৃষ্টি,ঝড়-তুফান
তারই মাঝে সাজানো সেই কুঁড়েঘর;
তোমার আঙ্গুলের ফাঁকে
আমার হাত-মাথায় হাত ।