আবদ্ধ খেচর কেবলই ডানা ঝাপটায়
রুদ্র খাঁচার আলিঙ্গনে।
নিঃসীম শূন্যে ডানা মেলে ওড়বার স্বাদটুকু
ও ফিরে পেতে চায়।
আবদ্ধ খেচর স্বাধীনতা চায়।
অথচ ওর সবটুকু চাওয়া-পাওয়া
ওর নিজের পৃথিবী ঘিরে -
পরাধীন জীবনের শৃঙ্খলে চাপা পরে আছে।

সেই কবে -
প্রকৃতির অমোঘ নিয়মে
এই ধরাধামে এসেছিল
একটি মানব শিশু।
মুক্ত বাতায়নে - কালের আবর্তে
আজ সে তরুণ-যুবার খোলসে আবৃত।
হৃদয় তার
জীবন শূন্যে ডানা মেলবার আশায় ব্যকুল।
কিন্তু, পরাধীনতার ঘৃণ্য নাগপাশে
তার উদ্দীপ্ত বাহু শৃঙ্খলিত।
তাইতো ও ফিরে পেতে চায়
এই ভগ্ন জীবনের আধারে
তার কাঙ্ক্ষিত সুন্দর জীবনের বাহুডোর।
ও বুঝি, স্বাধীনতা চায়।

দুরন্ত বালকের উদ্দাম ছোঁয়ায়
খাঁচার দুয়ার উন্মীলিত।
সুনীল শূন্যের আঙিনায়
খেচরের পদধ্বনি
এক স্বপ্নিল আবহের মাতম তুলে।
ও- আজ স্বাধীন
ও যে আজ মুক্ত।

তরুণ-যুবার দৰ বাহুর প্রতিরোধে
পরাধীনতার শৃঙ্খল ৰয়ে গেছে।
স্বপ্ন বিস্তারই সুন্দর জীবনের দ্বারে
ওর সবটুকু প্রত্যাশা আজ উন্মুক্ত।
ও যে আজ স্বাধীনতা পেয়েছে।