বর্ষা আসে নতুন রূপে বিজলী চমকায় কেশে
নামলো পরী আকাশ থেকে লাল আগুনে ভেসে।
মাটির বুকে বৃষ্টির ফোটা মেঘের পিঠে নিশান
ফসল এবার আসবে ঘরে উঠলো হেসে কিষাণ।
বর্ষার পানি পেয়ে আজ গাছ-পালা সব দাঁড়িয়ে
মাঠে নামে কৃষক সকল বাড়ী ঘর সব ছাড়িয়ে।
কেয়া কদম পুকুর পাঁড়ে নদী ভরা বান
তুলতে ঘরে শস্য ফসল বর্ষাকালের দান।
বৃদ্ধি পেয়ে বর্ষার পানি ভরল নদীর তীর
ঘরে বসে নববধূ রাঁধে পায়েস ক্ষীর।
আমার দেশের কানায় কানায় নব ফসল ফলে
বাংলার মাটি গা ভিজিয়ে নেয় বর্ষার জলে।
প্রতিদিনই বর্ষরা এসে সব করে দেয় কালো
ঘন কালো বর্ষরা নামে লাগে নাতো ভালো।
টুপটাপ বর্ষার বর্ষণে কোলা ব্যাঙের ডাক
হুতুম পেঁচার ওড়া উড়ি শেয়ালে দেয় হাঁক।
বর্ষার রাতে সব কিছু হয়ে পড়ে চুপ
অঝর ধারার বর্ষার তখন ধরে আরেক রূপ।