পৃথিবী এক ক্ষুধার রাজ্য।
ফুটপাতে অসহায় ক্ষুধার্ত শিশু,
সুদানের দুর্ভিক্ষ, চাতকের বৃষ্টির প্রতীক্ষা-
চোখে অস্ফুট জিজ্ঞাসা।
আমাদের মগ্ন চৈতন্যে কি-
এতোটুকু ঝাঁকি দিতে পেরেছে?

নিস্তব্ধ রাতে অশরীর নীরবতা
মাঝে মাঝে ঝিঁ ঝিঁ পোকার আর্তনাদ
কিছুতেই ঘুম আসছেনা-
ক্ষুধার্ত দাঁড়কাক গুলোর চিৎকারে।
এ এক নির্মম বাস্তবতায় শীর্ণ জীবন।
বেঁচে থাকার স্পৃহাগুলো ক্রমাগত ঝরে পড়ছে
শুধুই নিঃশব্দে নিভৃতে।

ক্ষুধার যন্ত্রণায় সিংহের হাতে হয়
নিজ শাবকের বলি
এ আরেক বীভৎস আহাজারী।
এই লক্ষ্যহীন ক্ষুধার মূঢ় যুদ্ধ
যেন আজন্ম চোখের বিগলিত দু’ফোঁটা তপ্তবারি।

চোখের পাতা বন্ধ করলে আলোকের মতো অন্ধকার
সব মানুষকে চিরকালের মতো বলি,
বর্বর হয়ো না।
ক্ষুধাতুর মুখে তুলে দাও খাবারের ঝুলি।