লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৪ নভেম্বর ১৯৮৮
গল্প/কবিতা: ১৫টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

৯০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftবন্ধু (জুলাই ২০১১)

নিভৃতচারী
বন্ধু

সংখ্যা

মোট ভোট ৯০

এমদাদ হোসেন নয়ন

comment ৯৩  favorite ৭  import_contacts ১,৬৫৮
দুরুদুরু বক্ষে এই বুঝি তুমি এলে
কী মায়ায় জড়ালে বন্ধু এ মেদুর হৃদে ?
তুমি ঊর্বশী, প্রেমের প্রাঞ্জল উপমা।
তোমার সৌন্দর্যে দৃষ্টিমুগ্ধ
আমার কাঙ্ক্ষিত সুমিষ্ট ভালোবাসা।
তুমি স্বপ্ন সুষমা খৈয়ামের এক পেয়ালা-
রঙিন জলে আশ্রিত জলমগ্ন পরমা।
এক দুর্দান্ত সুপুরুষ যখন অপলক-
তোমায় দেখেছে, সাতরঙা প্রজাপতির মতোই-
ফুলে ফুলে উড়ে, রূপ রস গন্ধে,
দুটি স্তব্ধ স্থির চোখে, মৃদু রহস্য ভরা ঠোঁটের হাসিতে,
বাঁধাহীন আমায় পাগল করেছে।
মেদিনীর প্রাঙ্গণে, প্রকৃতি ও জীবনের-
অন্তর্নিহিত নিবিড়তায় শুধু তোমাকে চাই।
জোছনা ঝরা ফাল্গুনী রাতে, গহিন ঐ অরণ্যে,
বর্ষার জলে চুপিসারে, বন্ধু তুমি অসীম অনুভবে।
রজনীগন্ধার দুধসাদা ঝাড়, দিগন্ত জোড়া মাঠ,
রক্তরাঙা পলাশ বনে, কবিতার ছন্দ খুঁজতে খুঁজতে-
কখনো-সখনো তুমি আস আনমনে।
আমি নিভৃতচারী, বৃষ্টি, পাখি, জোছনা খুঁজি
আর মেঘেদের কাছে বন্ধু তোমায় খুঁজি।
পদ্মার জলে অবাক তরঙ্গ
এখনো আমি বৃষ্টিমানব হয়ে তোমাতে মগ্ন।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement