তুমি কি দেখেছ মানুষ
মানুষরূপে মানুষের মাঝে আছে কত অমানুষ।
বন্ধু বলে আপন করেছে
আপন করে বুকে নিয়েছে;
আমার মুখে তুলে দিয়েছে হরেক রকম খাবার
সময় বুঝে লুটে নিয়েছে সব কিছুই তো আবার।
নীরবে আমার দলিল মেরেছে
সম্পদ টুকু কেড়ে নিয়েছে
মোর প্রিয়াকে করেছে আপনতর
জ্বালিয়ে পুড়িয়ে আমার স্বাদের ঘর।
ছিল এতটুকু সন্তান মোর
মারলিও তারে ওরে পাপীচোর!
শুধু লালসা, সম্পদের নেশায়
শুধু মোর প্রিয়ার দেহের আশায়।
জানি আমি ওদের পাবনা ফিরে
এই জীবনের, এই আসরে
ডাকবেনা কেউ আপন করে
ও বাবা, তুই এলি কি ঘরে?
তবু আজ নেই কান্না আমার
নেই ব্যাথা, নেই কষ্ট ঝরার
শুধু আছে ঘৃনা, আছে শত ক্রোধ
বন্ধু তোকে নিতে হবে এর শোধ।
হায়েনার মত ক্ষিপ্র থাবায়
মৃত্যু হবে, কে আছে থামায়
চোখের নিমেষে কেড়ে নেব প্রাণ
নিভে দেব তোর জীবনের তান।
দানবীয় বেশের চিনি নিস আমায়
শৃগালের হাসি আছে কে থামায়
হাসব সেদিন একাই আমি
হিংস্র পশু এক, কাঁপবে ভূমি।
অবশেষে তোর রক্ত চুষে
মারব উন্মাদ নেকড়ে বেশে
নতুন সূর্য হইবে যখন উদয়
জেনে রাখিস আমি তারপর নেব বিদায়।