ভাগ্যের নির্মম পরিহাস!
নিজদেহ যখন করে বিদ্রোহ
মেনে নিতে হয় সব হার।
রাজার রাজা মনে করা ভুল-
মশকের কামড়ে হয় মহামারী
জেনে রাখা ভাল, মৃত্যু অবধারিত!

মাথার উপর বসে যে মহারাজ
করছে রাজত্ব- বিশ্বশাসন
তাঁর থেকে বড় হতে নেই।
দাম্ভিক আচরণে বিধি রয় না বিধানে-
বিধাতার আনুকূল্যে বিধান সচল
যদি বাম- অতল জলের মৎস্যোদরে কবর!

নিজমুদ্রাদোষে যে দোষী-
আপদ থেকে রক্ষে কে তারে,
বিরাশি বছরে যার পুরে না বাসনা
হাজার বছরের কামনার কাছে সে বন্দি!
বড় আশা বড় দুঃখ- বুভুক্ষু সমুদ্র হলে
শেওলায় হারায় সুন্দরের গতি।

হে পৃথ্বীরাজ, অবশেষে স্থান কোথায়
আমি অবাক! মহা শাসক তুমি
পৃথিবী করতে চেয়েছিলে অধিকার
সেই পৃথিবীর তিন হাত মাটি আজ
তোমাকে দিচ্ছে না তিলপরিমাণ ঠাঁই!
হিমাগারে বন্দি তুমি- দুর্গন্ধে লজ্জিত আকাশ।