মিহি আলোর তাপরাশি

প্রত্যাশা (আগষ্ট ২০২২)

ওবায়দুল্লা সালমান
  • ২৩
নিশীথ গভীরে
আধার ঘনীভূত পথে,
শীতনিদ্রিত শহরে
কুকুরকুন্ডলিত দেহে,
কেউ শুয়ে আছে।
বরফ সদৃশ শান বাঁধানো পথ
ঠান্ডা তাপে প্রজ্বলিত করছে;
সে কাঁপছে শৈত্যপ্রবাহের আঘাতে।
চাঁদের ধাতব রুপালি-সাদা আালোয়
দেখা যাচ্ছে তাঁর মুখ, উদোম দেহ,
ফ্যাকাশে উর্ণারাশি ঊর্ধ্বনেত্রে কি যেন দেখছে।
ঊর্ধ্বাকাশের চাঁদটাও বুঝতে পারছে;
তার নিচে কেউ তাপ চায়; একটুখানি তাপ।
সে তার সমস্ত আলোরাশি ঢেলে দেয়;
কিন্তু সে আলো অতি কোমল, নিরুত্তাপ ,
এবার চাঁদ নিজের কোমলতায় নিজেই ব্যথিত হয়,
আর সে নিজেও একটু তাপের প্রয়োজন অনুভব করে;
তার নিচে ফুটপাথে শুয়ে থাকা লোকটির মতো।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

শীতের রাতে মোটা উলের কম্বলের নিচে শুয়ে পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ সুখ পাওয়া যায় ।কিন্তু যেসকল লোক ফুটপাথের শানের মেঝেতে শুয়ে রাত কাটায় তাদের হৃদয়ের সুপ্ত প্রত্যাশা আসলে কি?

২২ এপ্রিল - ২০২২ গল্প/কবিতা: ৮ টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের আংশিক অথবা কোন সম্পাদনা ছাড়াই প্রকাশিত এবং গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী থাকবে না। লেখকই সব দায়ভার বহন করতে বাধ্য থাকবে।

প্রতি মাসেই পুরস্কার

বিচারক ও পাঠকদের ভোটে সেরা ৩টি গল্প ও ৩টি কবিতা পুরস্কার পাবে।

লেখা প্রতিযোগিতায় আপনিও লিখুন

  • প্রথম পুরস্কার ১৫০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • দ্বিতীয় পুরস্কার ১০০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • তৃতীয় পুরস্কার সনদপত্র।

আগামী সংখ্যার বিষয়

গল্পের বিষয় "ভয়”
কবিতার বিষয় "শুন্যতা”
লেখা জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২৫ আগষ্ট,২০২২