সাগরে সফেন ঢেউ। জীবনেরও বদল তারিখে।
দূর থেকে যে দেখা,ব্যস্ত আনাগোনা দিনভোর,
সে বিনুনি বাধা মন। যেখানে স্বজন পরিবার,
শস্য মাখা হাত আপনি উঠে আসে চেনা মুখে।
তবু পরিচিত মুখও পাল্টায় বৈভবের বিলাপে।

বাজারে বিকচ্ছে বিলাসী সুখ। মঞ্চ বেঁধে,
কাঁচের ওপারে লাল নীল মুগ্ধতা থরে থরে
তরলে তামাকে ফুলকি, সন্ধে ভেঙেচুরে।
অজানা সুখ খুঁজে নিতে পথে নামে লোকে।
যে পথে স্বপ্ন ডোবে নিয়মিত লবন বিষাদে।

সূর্য ফিরিয়ে দিয়ে কোনো এক দূরের বিকেল,
অভিমান,অভিযোগ, যাতনার পাটাতন খুঁড়ে
পশরা সাজায় সাপের খোলস আর কঙ্কাল জুড়ে,
সুখের দখল নিতে বহুমুখী সন্ত্রাস চলে।
লকলকে লালসা বেড়ে ওঠে ডাল পালা মেলে।

খাদের কিনারে দাঁড়িয়ে যে দুটি চোখ আজ ঝাপসা,
তারও তো বালির ঢাল বেয়ে বয়স এলিয়ে পড়ে
গাছের ছায়ার মতো। মন চলে ছায়াবীথি ধরে
দিকচিহ্নহীন পথে। সেটাও তো কেবলই শূন্যতা।
মাটিতে ছড়িয়ে - মাটি চাপা দু চোখের পাতা।