যখন ভলো থাকি না,
তখন কেউ পাশে নেই।

যখন একটু নিশ্বাস ফেলতে মন চায় ,
শিশিরে পা ভিজিয়ে হেঁটে যেতে,

তখন বুনো শালিকের কিচির মিচির
কানে তালা লাগে।

একা এক শুন্যতার ঘোরে,
হেঁটে হেঁটে চলা পথে।

চুল আর শরীরের সুগন্ধে ,
লাল পিঁপড়ার দলের ভিড়।

টকটকে লাল রক্তবর্ণের
মাঝে ক্ষতবিক্ষত
ছোট শরীর !

মানুষের সভাব,
চকচকা দেখে মুগ্ধ হওয়া।

চুপসানো বণ‍ৃ্হীন ছলছলে
আখি দেখে করুনা করা,
কয়েক ক্ষনের জন্যে।

বিশাদে ভরা বুকে,
কাউকে ঠাঁই দেওয়ার মত নেই।

ছুটে চলতে পারে বহুক্ষন,
ফলাফল কেউ নেই,
কিছু নেই।

তাহার হাসি তে,
আমার আনন্দ নেই।

আমার আশ্রুতে,
তাহার সমবেদনা নেই।

তাই গন্তব্যহীন ধীরপায়ে হেঁটেচলা,

উফ্ কি অপূর্ব !

এক কান দিয়ে শুনে,
অন্য কান দিয়ে বের করে দেয়া।

চলে জীবন চলছে মন !
ছুটে চলা আজীবন !