স্রষ্টার কি মহিমা কাউকে দেন নাই পূর্নতা-
পূর্নতা কেবলি রহিয়াছে একমাত্র তাঁরি।
কত যুগ যুগ ধরে কত উচু নিচু জ্ঞানী গুণী-
কতকিছুর মোহে কতজন কত রং ধরিল!

মৃত্যুর কাছে একদিন সবাই হার মানিল,
নিজের মৃত্যু চেয়ে বড় কেয়ামত, আর কিছু নাই।
পৃথিবীর মহাপ্রলয়  কখন হবে তা-
একমাত্র স্রষ্টায় মহিয়ান।

প্রেমময় আত্না প্রেমখেলা সাঙ্গ করে-
দেহটারে করবে বিসর্জন ।
আত্নার মৃত্যু নেই,দেহটার মৃত্যু ঘটিবে।
মাটির দেহ সেই মাটির বুকেই হবে বিলীন-
কারোর থাকবে না একরত্তি ক্ষমতা সেদিন।

দেহ-আত্মার এ বাহ্যিক লীলাখেলায়,
আত্না অম্লান, দেহটারে ছাড়ি-
নিজেরে সপিবে স্রষ্টার বাড়ি।

আত্মসমর্পণ করিবে সবি ভুলে
পুলসিরাত কন্ঠকময়, সর্গ-নরক দুই কূলে।
আপনার কর্মগুণে ছিটকে পড়িবা-
অনন্তকালের এক কূলে।