অনুভব করি আমি আমার কল্পনায়
খোলা এক বিশাল আকাশ অন্ধকারময়
জোছনা ছড়ায় রূপালী চাঁদ আর তাঁরায়
আকাশের বুকেচেরা আলোর পৃথিবীর ছায়ায়।

চারপাশ স্তব্ধীভূত আর শুন-শান নিরবময়
আমি সেই আকাশ পটের নগ্ন দেহের তলায়
বিশালাকার এক নদী জলের ঠিক মাঝটায়
গন্তব্যহীন মাঝি ছাড়া এক নৌকায়
নিরিবিলি চারপাশ তার গভীর স্তব্ধতায়
অনুভব আমায় গ্রাস করে নেয়।

দূর থেকে মধুর এক সুর কানে ভেসে যায়
পাগলা মন দুই ঠোঁটের ছোয়ায় বাঁশি বাজায়
আমি এই সব দৃশ্য আঁকি আমার কল্পনায়
ভাবতে থাকি না পাওয়ার পরম ব্যাকুলতায়
অনুভবের মিছে মায়ায়।

কাগজের নৌক হারায় চলার গতিপথ
হয় না আর শেষবেলায় পথিকের পারাপার
কিংবা পাখির শীসে হয় না ঘুম ভাঙা আর

মানব মানবীর সংমিশ্রণে পাপাচার হয়েছে বলীয়ান
মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত কর,তোমার ভিক্ষা দেওয়া প্রাণ।