সবই আছে আমার, বাড়ি- গাড়ি, অর্থ, স্বর্ণ,
আঁখি মুদলেই শুনি নাই শুধু নাই আর নাই হর্ণ।
শত কোলাহল, শত ব্যস্ততা, কলের গান,
চরম বিরক্তি, নেই ভক্তি, শুধুই অভিমান।

বৃষ্টির ধ্বনি হৃদয় হানে, নৃত্যের তালে গান,
আমার শূন্য হৃদয়ের হাহাকারে ভীত কান।
আকাশ পানে চাতকের মত চেয়ে থাকি,
বিষম ব্যথায় শূন্য হৃদয়খানি উঠে ডাকি।

অন্ধকারে থেকে আমি আলোকে খুঁজি,
আলোর মিছিলে অবহেলায় চক্ষু বুঁজি।
মায়াবী রাতের চাঁদের আলোয় থাকি বসি,
শূন্যতা এসে বাসা বাঁধে মনে আসি।
শূন্যতায় ভরা এ জীবন পূর্ণতার আশায়,
শূন্যতাই যেন বেঁচে থাকার আশা জাগায়।