সমাজের প্রতিনিধিত্বকারী বিভিন্ন প্রকার বাবাদের কষ্টময় জীবনের কিছু অংশ তুলে ধরা হয়েছে।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২ জানুয়ারী ১৯৮৬
গল্প/কবিতা: ৩৫টি

সমন্বিত স্কোর

২.৩৪

বিচারক স্কোরঃ ১.১৪ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.২ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - বাবা (জুন ২০১৯)

বয়সের ভারে বুড়িয়ে যাওয়া মানুষটি আমার বাবা!
বাবা

সংখ্যা

মোট ভোট প্রাপ্ত পয়েন্ট ২.৩৪

এস জামান হুসাইন

comment ৪  favorite ০  import_contacts ১৪০
যে আমায় বুকে নিয়ে কাটিয়েছে নির্ঘুম রাত।
যার কোলে - পিঠে কেটেছে আমার প্রভাত।
যার স্নেহের চাদরে ঢাকা আমার শৈশব কৈশোর।
যিনি হাত ধরে শিখালেন পাঠশালায় যাওয়া।
তিনিই আমার পরম শ্রদ্ধেয় বাবা!

রিকশার ক্লান্ত প্যাডেলে নিথর পা রেখে,
অলস পরে থাকা রাস্তা মাড়িয়ে,
মেয়ের জন্য একশ গ্রাম পঁচা আঙ্গুর কিনে নিয়ে আসা।
অথবা
খেটে খাওয়া দিনমজুর মহাজনের টাকা পরিশোধের ব্যর্থ চেষ্টা,
ফসলের উচিত মূল্য না পাওয়ায় পাকা ধান ক্ষেতে আগুন দিয়ে প্রতিবাদ করা মানুষটি আমার বাবা !

ঐ তো বৃদ্ধাশ্রমের তিন নং গেটের
পাঁচ নং রুমটায় আধমরা আধপেটা
রুগ্ন দেহে জীর্ণ জামা পরে শুয়ে থাকার
ব্যর্থ অভিনয় করা মানুষটি আমার বাবা!

বয়সের ভারে বুড়িয়ে যাওয়া মানুষটি আমার বাবা!
রাতের আঁধারে ভাঙ্গা চশমা আলতো করে মুছে
চোখ দুটো কচলিয়ে
আবছা আলোয় ঠাহোর করে বলে,
“বাবা ! এত রাত করে বাসায় ফিরলে?”

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement